বিদেশগামী যাত্রীদের করোনা সনদ বাধ্যতামূলক নয়

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ

নিজস্ব প্রতিবেদক: এবার থেকে বিদেশগামী যাত্রীদের যে দেশে গন্তব্য সে দেশ যদি কোভিড-১৯ সনদ চায় তবেই নিতে হবে, অন্যথায় সনদ ছাড়াই বিদেশ ভ্রমণ করতে পারবে বাংলাদেশিরা।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেছেন, বিদেশগামী যাত্রীদের জন্য বর্তমানে করোনা-নেগেটিভ সনদ বাধ্যতামূলক আছে। এই ব্যবস্থায় আংশিক সংশোধন করে যে সকল দেশ যাত্রীদের জন্য করোনা-নেগেটিভ সনদ চাইবে, কেবল সে সকল দেশের যাত্রীদের জন্য করোনা-নেগেটিভ সনদ গ্রহণ বাধ্যতামূলক হবে।

করোনাভাইরাস মহামারীতে গত মার্চ থেকে ৩ মাস বিশ্বে আকাশপথে যাত্রী পরিবহন অনেক দেশ বন্ধ রেখেছিল। সীমিত পরিসরে আকাশ পথ খোলার পর বাংলাদেশ থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ে অনেকে বিদেশে গিয়ে ধরা পড়ার পর কোভিড নেগেটিভ সনদ বাধ্যতামূলক করে সরকার।

এদিকে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান জানান, গত ১২ জুলাই সার্টিফিকেট সংগ্রহের বাধ্যবাধকতার ঘোষণা দেয়া হলেও নিয়মটি কার্যকর হয়েছিল এক সপ্তাহ আগে।  ২৩ জুলাই থেকে বাংলাদেশ থেকে সকল বিদেশগামী যাত্রীদের জন্য বিমানবন্দরে কোভিড-১৯ নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখানো বাধ্যতামূলক করার পর এই কয়েক দিনেই ব্যাপক সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়েছে বিদেশগামীদের।

কারণ সারাদেশে মোট ১৩ জেলার সিভিল সার্জনের কার্যালয়ে ১৩ টি বুথে বিদেশগামীদের নমুনা পরীক্ষার বুথ রয়েছে। আর ঢাকায় রয়েছে মোটে একটি। ৪৮ ঘণ্টা আগে সেখানে নমুনা দেয়ার কথা থাকলেও সময়মত তা হাতে না পাওয়ায় অনেকেই ফ্লাইট ধরতে পারছিলেন না।

পর্যাপ্ত সংখ্যক বুথ না থাকার কারণে অনেকেই বিপাকে পড়েছেন। লম্বা লাইন দিতে হচ্ছিল যাত্রীদের। এছাড়াও যে সার্ভারে পরীক্ষার ফল আপলোড করতে হয় সেটি প্রায়শই ডাউন থাকার কারণে দেরি হয়েছে, বলে এর আগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে জানানো হয়েছে।

 

Loading...
Share via
Copy link
Powered by Social Snap