‘বিগ বস’ সালমান খান নতুন সিজনে নিচ্ছেন ৫২২ কোটি টাকা

বিনোদন ডেস্ক:

আসছে ‘বিগ বস ১৪’। আর এই রিয়েলিটি শোয়ের এত টিআরপির গোপন রহস্য প্রযোজকেরা জানেন। জানেন সালমান নিজেও। বড় পর্দায় সালমান খানের একের পর এক ব্লকবাস্টার হিট ছবির প্রভাব আছে ছোট পর্দায়ও। ‘বিগ বস’–এর যে পর্বে সালমান খান থাকেন, সেই পর্বের টিআরপি বেড়েছে হু হু করে। তাই সালমান যত বড় অঙ্কের চেকই চান না কেন, প্রযোজকেরা তা দিতে বাধ্য। আর সেই সুযোগটা কড়ায়–গন্ডায় কাজে লাগাচ্ছে সালমান। তাই গত বছরের তুলনায় দ্বিগুণেরও বেশি দর হাঁকিয়েছেন সালমান।

‘বিগ বস ১৩’-এর শুরুতেই খবর উঠে এসেছিল যে সালমান ওই সিজনের প্রতি সপ্তাহে ১৭ কোটি টাকা নিচ্ছিলেন। অর্থাৎ, প্রতি পর্বের জন্য এবার ৮ দশমিক ৫ কোটি রুপি নিয়েছেন। সব মিলিয়ে পুরো সিজনের জন্য সালমান ২০০ কোটিরও বেশি পেতে চলেছেন। আর এবার সালমান খান পুরো সিজনের জন্য বাংলাদেশি মুদ্রায় নেবেন ৫০০ কোটি টাকারও বেশি। আরও স্পষ্ট করে বললে হয়, ৫২২ কোটি টাকা! প্রতি সপ্তাহে সালমানের অ্যাকাউন্টে যোগ হবে প্রায় ৪৫ কোটি টাকা। অর্থাৎ, পর্বপ্রতি ২২ কোটি টাকার বেশি নেবেন তিনি।

আসছে অক্টোবরেই প্রিমিয়ার হওয়ার কথা জনপ্রিয় এই শোয়ের। ইতিমধ্যে প্রতিযোগীর খোঁজ চলছে। ফিল্মফেয়ারের প্রতিবেদন অনুসারে, ‘বিগ বস’ আসছে নতুনরূপে। তাতে যোগ হচ্ছে নতুন নতুন সাসপেন্স আর ড্রামা। এই পরিমাণ টাকা দিয়ে সালমান অন্তত পাঁচটি সিনেমা করতে পারতেন!

২০১০ সাল থেকে সালমান খান ‘বিগ বস’-এর উপস্থাপনা করেন। তাঁকে সর্বশেষ দেখা গেছে ‘দাবাং থ্রি’ সিনেমায়। প্রভু দেবা পরিচালিত এই ছবিতে সালমান ছাড়াও অভিনয় করেছেন সোনাক্ষী সিনহা, আরবাজ খান, সুদীপ, নবাগতা সাই মঞ্জরেকর; যদিও বক্স অফিসে আশানুরূপ ব্যবসা করতে পারেনি এই ছবি।

এরপর তাঁকে দেখা যাবে ‘রাধে: দ্য মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’ ছবিতে। করোনার কারণে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই ছবি। তবে ‘বিগ বস’-এর ১৪তম সিজনে সমস্তই পুষিয়ে নিয়েছেন সালমান!

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Share via
Copy link
Powered by Social Snap