ট্রাম্প কার্ড এবার কার্যত অচল, হতাশ রিপাবলিকান শিবির

অনলাইন ডেস্ক:

রিপাবলিকান পার্টি আসন্ন নির্বাচনে সিনেটে তাদের নিয়ন্ত্রণ হাত ছাড়া করতে বসেছে। একই অবস্থা কংগ্রেসেও। ৫৩৮ আসনের যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেসের কর্তৃত্ব বর্তমানে ডেমোক্রেটদের হাতে। ২৩২ আসন নিয়ে তাদের একচ্ছত্র নিয়ন্ত্রণ এখন। কংগ্রেসে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে ২১৮ আসন প্রয়োজন। এই নির্বাচনে ডেমোক্রেটদের কংগ্রেসে কোন আসন হারানোর আশংকা নেই। জরিপের ফলাফল বলছে, বরং ডেমোক্রেটরা আরও আসন সংগ্রহ করে তা বাড়াতে পারে এবার। এদিকে, রিপাবলিকানরা সিনেটে ৬টি আসন বেশি নিয়ে সংখ্যাগরিষ্ঠ থাকলেও তাদের এই বলয়ে এবার শক্ত থাবা বসিয়ে চুরমার করে ফেলেছে ডেমোক্রেট শিবির।

কম করে হলেও ৫টি আসন ৩ নভেম্বরের নির্বাচনে হারাতে হতে পারে। মাত্র ঘণ্টাখানেক আগে আপডেট করা ফাইভ থার্টি এইটের সিনেটের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে প্রকাশিত জরিপের ফলাফলে শতকরা ৭৭ শতাংশে ডেমোক্রেটরা অগ্রগামী। পক্ষান্তরে, মাত্র ২৩ শতাংশ সিনেটে কতৃত্ব প্রতিষ্ঠার সম্ভাবনা আছে রিপাবলিকান প্রতিপক্ষের। ১শ আসনের সিনেটে ৫১ হচ্ছে সংখ্যাগরিষ্ঠ সংখ্যা। বর্তমানে ৫৩ আসন নিয়ে রিপাবলিকানদের নিয়ন্ত্রণ রয়েছে। ৪৫ ডেমোক্রেট ও স্বতন্ত্র ২। কলারাডো, মেইন নর্থ ক্যারোলিনা ও আরিজোনার সিনেটের রিপাবলিকান আসন অনেকটা যেন সুতোর উপর ঝুলে আছে। মনটানা, আইয়োয়া এবং জর্জিয়া রাজ্যের বর্তমান রিপাবলিকান সিনেটে আসনে লড়াই হবে হাড্ডাহাড্ডি।

এখান থেকেও দু -একটি ছুটে আসতে পারে ডেমোক্রেটদের হাতের মুঠোয়। হাই প্রোফাইল অনেক সিনেটরের রাজনীতির মৃত্যু ঘণ্টা বেজে উঠছে ইতিমধ্যে। এ বিপর্যয়ের অন্যতম কারণ কিছু সিনেটর-এর সুপ্রিমকোর্টের সাম্প্রতিক মনোনয়ন নিয়ে দ্বিচারিতা। মরার উপর খাঁড়ার ঘা হিসেবে প্রেসিডেন্ট পদে ১০ থেকে ১২ পয়েন্ট লীড নিয়ে বাইডেন এগিয়ে আছেন জাতীয় পর্যায়ে।

সামান্য ব্যতিক্রম বাধে ব্যাটালগ্রাউন্ড রাজ্যেও বাইডেন অগ্রগামী। ২০১৬ সালের ট্রাম্প কার্ড এবার বাইডেনের বিপরীতে তেমন একটা কাজে দিচ্ছে না।

Loading...
Share via
Copy link
Powered by Social Snap