টাঙ্গাইলে সালিশ চলাকালে মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যা

নিউজ ডেস্ক:

বাসাইলে গ্রাম্য সালিশে আব্দুল লতিফ খান (৬৫) নামে এক মুক্তিযোদ্ধাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার মটরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আজ শনিবার সকাল সাড়ে ৯টা পর্যন্ত থানায় কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি।
তবে ঘটনার পর থেকেই জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানান বাসাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হারুনুর রশিদ।
এলাকাবাসীদের বরাত দিয়ে বাসাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হারুনুর রশিদ জানান, কয়েক দিন ধরে মুক্তিযোদ্ধা লতিফ খানের সঙ্গে প্রতিবেশী আবু খান ও তার ছেলে পাভেল, পারভেজের সঙ্গে দুটি পুকুরের মাছ নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল।
এ বিষয়ে মীমাংসার জন্য স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহজাহান খানের বাড়ির উঠানে শুক্রবার বিকেলে এক সালিশের আয়োজন করা হয়।
সালিশের একপর্যায়ে কথা-কাটাকাটির জেরে আবু খান, পাভেল ও পারভেজসহ কয়েক জন যুবক লতিফ খানকে পিটিয়ে আহত করেন।
এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।
এ ব্যাপারে হাবলা ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ড সদস্য শাহজাহান খান সাংবাদিকদের বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষকে নিয়ে সালিশ বসা হয়। একপর্যায়ে দুই পক্ষই ক্ষিপ্ত হয়ে সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় দুই পক্ষেরই কয়েকজন আহত হয়। ওই বীর মুক্তিযোদ্ধাকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে তার মৃত্যু হয়। ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক।
এ ব্যাপারে বাসাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হারুনুর রশিদ জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
Loading...
Share via
Copy link
Powered by Social Snap