করোনার প্রভাব থাকবে কয়েক দশক: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

মহামারি করোনাভাইরাসে নাকাল পুরোবিশ্ব। ছয় মাসেরও বেশি সময় ধরে বিশ্বে তাণ্ডব অব্যাহত রেখেছে অদৃশ্য এই শত্রুটি। সারাবিশ্বের মানুষ এখন তাকিয়ে কার্যকর কোনো ভ্যাকসিনের দিকে। এরইমধ্যে নতুন দুঃসংবাদ দিলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। সংস্থাটি জানিয়েছে, আগামী কয়েক দশক ধরে করোনার প্রভাব থাকবে। এখন পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছে ১ কোটি ৭৭ লাখেরও বেশি মানুষ। প্রাণ হারিয়েছেন ৬ লাখ ৮৩ হাজার। গত ডিসেম্বরে চীনে শনাক্ত হওয়ার পর সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে ভাইরাসটি।
সম্প্রতি বৈঠকে বসেছিল সংস্থার ইমার্জেন্সি কমিটি। এটা ছিল তাদের চতুর্থ বৈঠক। সেখানে উপস্থিত ছিলেন কমিটির ১৮ জন সদস্য ও ১২ জন অ্যাডভাইজার। সেসময় হু প্রধান টেড্রোস আধানম গেব্রিয়েসুস বলেন, ‘৬ মাস আগে যখন আমাকে পাবলিক হেলথ ইমার্জেন্সি ঘোষণা করতে বলা হয়েছিল, তখন আক্রান্ত ছিলেন ১০০ জনেরও কম, চীনের বাইরে কারও মৃত্যু হয়নি। এই মহামারি শতাব্দীতে একবার হয়। এর প্রভাব থাকবে অন্তত কয়েক দশক ধরে।’ সংস্থাটির মহাপরিচালক বলেন, ‘এই নিয়ে ষষ্ঠবার স্বাস্থ্যক্ষেত্রে জরুরি অবস্থা জারি করলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে নিশ্চিতভাবেই বলা যায়, এই ছ’বারের মধ্যে এটাই সবচেয়ে খারাপ অবস্থা।’ গেব্রিয়েসুস আরও জানান, সংক্রমণ ছড়ানোর ৬ মাস পরেও এই ভাইরাস গতি বাড়াচ্ছে। শুধুমাত্র গত ৬ সপ্তাহেই বিশ্বজুড়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হয়েছে। আর বিপদ এখনও বাকি আছে। এই মহামারি থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা। যেখানে স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে, সেখানে সংক্রমণ কমছে। যেখানে মানা হচ্ছে না, সেখানে বাড়ছে।

Loading...
Share via
Copy link
Powered by Social Snap